সুইজারল্যান্ডর - একটি সংক্ষিপ্ত চিত্র

তাহলে আপনি বিদেশে পড়াশোনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন? গ্রেট! কিন্তু স্বাগতিক দেশ নির্বাচন করাটা সম্ভবত সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত যা আপনি নেবেন,যা আপনার- ব্যক্তিগত এবং পেশাদারী, সমগ্র জীবন অবশ্যই প্রভাবিত করবে ।শীঘ্রই আপনি একটি নতুন সংস্কৃতি, জীবনের একটি নতুন পথের এবং নতুন মানুষের জন্য আপনার দেশ ছাড়বেন।

suzerland

যার ফলে একজন ছাত্রের একটি আন্তর্জাতিক শিক্ষা থেকে বেরিয়ে এসে শুধুমাত্র তাদের পড়াশুনার বিষয়ে পুঙ্খানুপুঙ্খরুপে বুঝেই না বরং বিশ্লেষণী ক্ষমতা এবং সমস্যা সমাধানের দক্ষতার ও বৃদ্ধি ঘটে যার ফলে পরবর্তি জীবনে সে নিয়োগকারীদের দ্বারা পুরুষ্কৃত হয় এবং আপনি যদি আপনার পড়াশুনার গন্তব্য হিসেবে সুইজারল্যান্ডকে বেছে নেন ,তাহলে অবশ্যই আপনার ভাল কিছু দেখার মত একটি চোখ এবং উচ্চ শিক্ষার জন্য আগ্রহ আছে।

ek

ভাষা: জার্মান,ফ্রেন্স , ইতালিয়ান এবং রোমান

সুইজারল্যান্ড অবিশ্বাস্য সৌন্দর্যের একটি দেশ: অসমতল পর্বত শিখর, হালকা মেঘ,পর্বতের উঁচু শৈলশিরায় ভাঁজ করা কোমল সবুজ ময়দান, সংকীর্ণ ঘাটের মাঝে বইছে নাটকীয় নদী, তাদের পর্বত পকেটের মধ্যে অলংকারের মত ঝিলিমিলি করছে ক্ষুদ্র নীল হ্রদ, পোস্টকার্ড সদৃশ গ্রাম যেন খেলনার মত তৈরী কাঠের কুটির। দেশেটি বাস্তববাদী হবার জন্য খুবই উপযুক্ত। শতাব্দী ধরে সুইজারল্যান্ড কবি এবং শিল্পীদের অনুপ্রাণিত করে আসছে যারা কাগজ এবং পটে তার গৌরবের বিজ্ঞাপন দিচ্ছে এবং তার খ্যাতি সারা বিশ্ব থেকে দর্শকদের আকৃষ্ট করেছে।

হোটেল স্থান নির্বাচনের জন্য সৌন্দর্য ও পুরাতন বিশ্বের আবহ ভিত্তি হিসাবে ব্যবহার করা হয়। সুইজারল্যান্ড সারা বিশ্ব থেকে অনেক দর্শক আকৃষ্ট করে এবং এইভাবে বিশ্বের বৃহত্তম আতিথেয়তা শিল্প গড়ে তুলেছে।

জলবায়ু:

সুইজারল্যান্ডের জলবায়ু সারা বছরই সহনীয় থাকে যদিও উষ্ণতর অঞ্চল থেকে আসা পর্যটকদের কাছে শীতকাল গুরুতর বলে মনে হবে। আবহাওয়া বেজায় গরম, ঠান্ডা বা আর্দ্র হয় না। জুলাই ও আগস্ট মাসের গ্রীষ্মকালের দিনে তাপমাত্রা ১৮সি থেকে ২৮ সি (৬৫ থেকে ৪২ F)এর মধ্যে থাকে।শরৎ এবং বসন্তের দিনে তাপমাত্রা ৮ থেকে ১৫ সি এর মধ্যে থাকে (৪৬ থেকে ৫৯F) এবং জানুয়ারী এবং ফেব্রুয়ারী মাসে শীতকাল -২ থেকে ৭ সি (২৮ - ৪৫ F) শীতল হয় ।যদি আপনি সুইজারল্যান্ডে হেঁটে ভ্রমণ করেন, আরামদায়ক জুতা এবং ওয়েদারপ্রুফ পোশাক পরতে মনে রাখবেন।, রেইনকোট এবং বরফের প্রতিফলিত উজ্বল আলো থেকে আপনার চোখ রক্ষা করার জন্য সানগ্লাস রাখুন।

Back to Top