জার্মানির - একটি সংক্ষিপ্ত চিত্র

জার্মানির একটি সমৃদ্ধ ইতিহাস আছে, যেখানে রয়েছে-গতিশীল শহর, চিত্রানুরুপ গ্রামাঞ্চল, বিষ্ময়কর সংস্কৃতি এবং ভালবাসাময় রাজপ্রাসাদ এবং গীর্জা।আপনি যদি জার্মানি বা অন্য কোন দেশে আপনার উচ্চতর শিক্ষা গ্রহণের পরিকল্পনা করেন, তাহলে সেদেশের ইতিহাসের সাথে নিজের পরিচিতি থাকা ভাল।

germany

UK এর মধ্যে ইংল্যান্ডে আছে ঐতিহ্যগতভাবে প্রভাবশালী জাতি যেহেতু মোট জনসংখ্যার ৮০ভাগ তারা। স্কটল্যান্ড এবং ওয়েলসের মানুষের আছে গর্বের জাতীয় ঐতিহ্য এবং ভাষা । স্কটিশ গেলিক, দেশের উত্তর পশ্চিমে কথ্য ভাষা হিসেবে ব্যবহৃত হয় যা প্রধান জনসংখ্যার একটি ক্ষুদ্র অংশ । বহু মানুষ ওয়েলশ ভাষায় কথা বলে এবং ওয়েলসে সব পাবলিক সাইন ওয়েলশ এবং ইংরেজি উভয় ভাষায় প্রদর্শন করা হয়।

নীচে, জার্মানি একটি সংক্ষিপ্ত ইতিহাস দেয়া হল: Lang

রাজধানী : বার্লিন

প্রধান শহর: ফ্র্যান্কফুট,বার্লিন , মিউনিখ, স্টুটগার্ড , বামবার্গ

সময়: জার্মানিতে কেন্দ্রীয় ইউরোপের সময় চলে, যা U.S ইস্টার্ন স্ট্যান্ডার্ড টাইম থেকে ৬ ঘন্টা এগিয়ে

ভাষা: জার্মান

মুদ্রা : ইউরো

ধর্ম: প্রোট্যাস্ট্যান্ট এবং রোমান ক্যাথলিক

সময়

পুরো জার্মানি এক সময় অঞ্চল, কেন্দ্রীয় ইউরোপীয় সময় (সিইটি) এর মধ্যে পড়েছে।বসন্তে ঘড়ি এগিয়ে এবং শরতে পিছিয়ে দেয়া হয়।মার্চের শেষ রবিবার গ্রীষ্মের সময় (এক ঘন্টা এগিয়ে) শুরু হয়। অক্টোবরের শেষ রবিবার শীতকালীন সময় (এক ঘন্টা পিছিয়ে) শুরু হয়।

জলবায়ু

জার্মানির বেশিরভাগ অঞ্চল পরিমিত, সামুদ্রিক জলবায়ু অঞ্চলে পড়ছে। সারা বছর জুড়ে বৃষ্টি পড়ে। শীতকালে গড় তাপমাত্রা উত্তর জার্মান সমতলে +২ C এবং পর্বতে -৬ C ।জুলাই মাসে গড় তাপমাত্রা উত্তর জার্মান সমতলে +১৮ C এবং দক্ষিণ উপত্যকায় +২০ C এর মধ্যে থাকে। ব্যতিক্রমি উচ্চ সমভূমির মৃদু জলবায়ু ছাড়াও উচু বাভারিয়া যা উষ্ণ জাযগা দ্বারা প্রভাবিত হয়, উষ্ণ আলপাইন বায়ু যা দক্ষিণ থেকে প্রবাহিত হয়, হার্জ পর্বত যেখানে আছে তার নিজস্ব জলবায়ু ঝড়োবাতাস, শীতলগ্রীষ্মকাল এবং তুষারময় শীতকাল জার্মনির জলবায়ুর অন্তর্ভুক্ত।

জার্মানির অনুমিত তাপমাত্রা (মাসিক)

tapmatra

কথ্য ভাষা

ভৌগলিক অবস্থান সংশ্লিষ্ট আধুনিক জার্মান ভাষায় ২টি গ্রুপ আছে:maনিম্ন জার্মান উত্তর জার্মানিতে উচ্চারিত হয়,এবং উচ্চ জার্মান জার্মানির নিম্ন অর্ধেকে অস্ট্রিয়া এবং সুইজারল্যান্ডে উচ্চারিত হয়।

বাংলাদেশ ও জার্মানির মধ্যে চলাচলকারি আন্তর্জাতিক ফ্লাইট

নিম্নলিখিত বিমান ঢাকা ও ফ্রাংকফুর্টের মধ্যে উড়ে:

• বাংলাদেশ বিমান

• লুফথানসার

• গালফ এয়ার

• KLM রয়াল ডাচ এয়ারলাইনস

• এয়ার ফ্রান্স

• তুর্কি এয়ারলাইনস

• এয়ারোফ্লোট রাশিয়ান এয়ার

কয়েকটি এয়ারলাইন্সের মধ্যে বাংলাদেশ বিমান একটি যা কিছু ছাত্রদের ডিসকাউন্ট অফার করে। ডিসকাউন্ট এবং লাগেজ ভাতার নিয়মিত আপডেটের জন্য তাদের ওয়েবসাইট চেক করুন। উদাহরণস্বরূপ, ২00৯ সালের জুন মাসে জেট এয়ারওয়েজ এক্স-ইন্ডিয়া থেকে EU / ইউরোপ ভ্রমণকারী ছাত্রদের জন্য একটি লাগেজ ভাতা পরিবর্তন করে ঘোষণা করে মোট ৫0 কেজি (অর্থাৎ সাধারন FBA ২৮ কেজি এর সাথে অতিরিক্ত ২২ কেজি লাগেজ) ৩১ অক্টোবর ২00৯ পর্যন্ত।

Back to Top