manager

 

 

সুস্পষ্ট উদ্দেশ্য অর্জন করার জন্য নেতৃত্ব দানের গুণাবলী এবং মানুষকে কাজ করতে অনুপ্রাণিত করার ক্ষমতাকে ম্যানেজমেন্ট হিসাবে সংজ্ঞায়িত করা হয়। এটা অসংখ্য অর্থনৈতিক এবং অন্যান্য কারণের উপর ভিত্তি করে সিদ্ধান্ত গ্রহণের সাথে সম্পর্কীত। পরিকল্পনা, সময় নির্ধারণ, সিদ্ধান্ত,নিয়ন্ত্রণ ইত্যাদিতে তথ্য প্রয়োজন যেহেতু প্রযুক্তিগত,অর্থনৈতিক এবং অন্যান্য বিষয়ে মূল্যায়ন ব্যবস্থাপনা কৌশলকে গুরুত্বপূর্ণ করে তোলে।বেশিরভাগ কর্পোরেশন এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বিপণন, বিক্রয়, মানব সম্পদ এবং আর্থিক বিভাগকে ম্যানেজমেন্ট শিক্ষা হিসেবে বিশেষায়িত করে।

জব প্রফাইল


mana-1বিজনেস ম্যানেজারদের কাজসমূহ

• পরিকল্পনা ও পূর্বাভাস

• সংগঠিত করা

• কর্মী এবং সরঞ্জাম নির্বাচন

• নিয়ন্ত্রণ করা

• প্রেরণা

• গবেষণা

• যোগাযোগ

ম্যানেজমেন্টের অনুক্রম

অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজমেন্টের জন্য একটি সক্রিয় অনুক্রম অনুসরণ করে।

জুনিয়র ম্যানেজমেন্ট পজিশন

ম্যানেজমেন্ট প্রশিক্ষণার্থীরা শিক্ষানবিশকাল অতিবাহিত করে, যে সময় তারা প্রতিষ্ঠানের কাজের সাথে পরিচিত হয়। এই চাকরিকলীন প্রশিক্ষণ শেষ হওয়ার পর তারা জুনিয়র স্তরের ম্যানেজার হিসাবে নিয়োগপ্রাপ্ত হয়।

• ম্যানেজমেন্ট প্রশিক্ষণার্থীরা জুনিয়র নির্বাহী হিসাবে কাজ করে এবং নির্বাহী ক্যাডারকে সহায়তা করে।

মিডিল ম্যানেজমেন্ট পজিশন

ডিভিশনাল বা ব্রাঞ্চ ম্যানেজার, পারসোনাল ম্যানেজার, অ্যাকাউন্ট ম্যানেজার, স্টোর ম্যানেজার, সেলস ম্যানেজারা সিনিয়র পজিশনের যা একটি প্রতিষ্ঠানের মিডিল লেভেল ম্যানেজমেন্ট গঠন করে।

• তারা তাদের সাহকারী এবং সিনিয়র ম্যানেজারদের মধ্যে একটি সংযোগ।

• তারা সমন্বয় সাধন করে এবং প্রতিষ্ঠানের সাথে সাথে প্রতিষ্ঠানের বাইরে সংস্থার সঙ্গে সরাসরি কাজ।

• মিডিল ম্যানেজার, এই পর্যায় থেকে সিনিয়র অবস্থানে যাবার আগে এই পর্যায়ে অনেক বছর কাজ করে। সাধারণত তারা তাদের অবস্থানে বেশি সিনিয়র হওয়ার সাথে সাথে তারা তাদের বৃহত্তর দায়িত্ব ভাগ করবে ধরা হয়।

সিনিয়র ম্যানেজমেন্ট পজিশন

সিনিয়র ম্যানেজার একটি প্রতিষ্ঠানের মূল অবস্থানে অবস্থানে করে। তারা ম্যানেজিং ডিরেক্টর, চীফ পারসোনাল ম্যানেজার, ফাইন্যান্সিয়াল কন্ট্রোলার, ভাইস প্রেসিডেন্ট, ডিরেক্টর, ইত্যাদি হয় ।

• তারা প্রতিষ্ঠানের পরিকল্পনাকারী।

• তারা নীতিমালা, উন্নয়নমূলক কার্যক্রম প্রণয়নের জন্য এবং জুনিয়র ও মিডিল স্তরের উপযুক্ত কর্মকর্তাদের নির্বাচন করার জন্য দায়িত্ব প্রপ্ত।

• তারা ব্যবস্থাপনা এবং প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিত্ব করে।

সবচেয়ে জুনিয়র অবস্থান থেকে শীর্ষ স্তরের পেশাদার ম্যানেজারা তাদের প্রতিভা, কর্মদক্ষতা এবং যোগ্যতা অনুযায়ী হয় ।

বিশেষায়িত এলাকাসমূহ

যেকোনো এন্টারপ্রাইজে পরিচালকদের জন্য বিশেষএ লাকা বা কার্যগত এলাকা হল বিপণন / বিক্রয়, কর্মীদেরঅর্থ / হিসাব, উৎপাদন /প্রকৌশল, উপকরণ ক্রয় এবং কিছু এন্টারপ্রাইজে পরিচালকদের রপ্তানি ব্যবস্থাপনা এবং বাজার গবেষণা বা বাজার তথ্য নিয়ে কাজ করতে হয়।

 

Busi

 

কর্মসংস্থানের সুযোগ


ব্যবসায়র প্রসার, বিদেশী বিনিয়োগ ও বাংলাদেশে আসা বেশিরভাগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বিজনেস ম্যানেজারদের পেশাদার ব্যবসায়ী হিসাবে দেখা যায়। সব বড় আইটি প্রতিষ্ঠান, আর্থিক, হসপিটালিটি, রপ্তানি, পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান বিজনেস ম্যানেজারদের নিয়োগ দেয়।বিভিন্ন খাতে এর সুযোগ বৃদ্ধি পাচ্ছে যেমন গ্রামীণ ব্যবস্থাপনা, হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট, উপকরণ, বিক্রয়, কৌশল, অর্থ ইত্যাদি ।

 

আয়ের সুযোগ


প্রতি বছরে ৩.৫০ লক্ষ থেকে ২৪ লক্ষ
(বেতন তথ্য উৎস PayScale.com )

উপার্জন বিবরণ
প্রতি মাসে ২৫,000 টাকা থেকে এক লক্ষ বা আরো বেশি।

 

কিভাবে এ পেশায় আসবেন


Busis-managment

 

 

 

 

 

* ম্যানেজমেন্ট শিক্ষা স্নাতক পর্যায়ে শুরু হতে পারে যদিও অধিকাংশ পেশাদার স্নাতকোত্তর যোগ্যতা রাখা । স্নাতক কোর্সে ম্যানেজমেন্টের সব প্রয়োগগত এলাকায় প্রাথমিক জ্ঞান প্রদানকরা হয়। এই কোর্স বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এবং সব বিষয়ে স্কুল থেকে পাশ করা ছাত্রদের জন্য ব্যবসা স্কুলের দ্বারা পরিচালিত হয়। কিছু মর্যাদাপূর্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি নির্বাচন পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তি করা হয়।

** ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রামগুলো কর্মক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞ হত্তয়ার সুযোগ দেয় যেমন মার্কেটিং,ফিন্যান্স,পার্সোনেল বা হিউম্যান রিসোর্স,গ্রামীণ ম্যানেজমেন্ট, কর্পোরেট ম্যানেজমেন্ট।

where-you-admi
 

 

Share Button
পড়া হয়েছে 328 বার

Back to Top