নিউজিল্যান্ডে স্নাতকোত্তর অধ্যয়ন

নিম্নলিখিত ডিগ্রীগুলো হচ্ছে নিউজিল্যান্ডের স্নাতকোত্তর ডিগ্রী:

স্নাতকোত্তর ডিপ্লোমা: সাধারণত এটি এক বছরের পুরো সময়ের স্টাডি। এটা ব্যাচেলর ডিগ্রীর পরে স্নাতক স্তরের পঠিত বিষয়ের উপর নেয়া হয়।

মাস্টার্স ডিগ্রী: এটি ব্যাচেলর ডিগ্রীর পরে ব্যাচেলর স্তরে অর্জিত জ্ঞানের উপর গঠিত দুই বছরের পুরো সময়ের স্টাডি। নিউজিল্যান্ডের মাস্টার্স ডিগ্রী পাঠক্রম ও গবেষণার একটি সংমিশ্রণ ।

পিএইচডি ডিগ্রী:
একটি ডক্টরেট ডিগ্রী সাধারণত তিন বছরের পুরো সময়ের স্টাডি এবং গবেষণা । একটি ডক্টরেট প্রোগ্রামে ভর্তির জন্য একটি প্রথম শ্রেণী বা ভাল দ্বিতীয় শ্রেণীর সন্মান ডিগ্রী, একটি মাস্টার্স ডিগ্রী বা সমমানের যোগ্যতা প্রয়োজন।

অ্যাকাডেমিক সেশন: দক্ষিণ গোলার্ধে হওয়ায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের সেশন ফেব্রুয়ারির শেষে বা মার্চের শুরুতে আরম্ভ হয় এবং অক্টোবরে শেষ হয়।

কোর্স: নিউজিল্যান্ডের আটটি বিশ্ববিদ্যালয় বিভিন্ন বিষয়ে স্নাতকোত্তর কোর্স অফার করে।

স্নাতকোত্তর কোর্স সম্পর্কে আরও জানার জন্য নিম্নলিখিত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ক্লিক করুন:

ইউনিভার্সিটি অফ অকল্যান্ড
অকল্যান্ড ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজি (এইউটি)
ইউনিভার্সিটি অফ ওয়াইকাটো (হ্যামিলটন)
ম্যাসে ইউনিভার্সিটি (পামর্স্টন নর্থ, ওয়েলিংটন ও অকল্যান্ড)
ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটি অফ ওয়েলিংটন
লিঙ্কন ইউনিভার্সিটি, নিউজিল্যান্ড (ক্রাইস্টচার্চ)
ইউনিভার্সিটি অফ ক্যান্টারবেরি (ক্রাইস্টচার্চ)
ইউনিভার্সিটি অফ ওটাগো (ড্যূনিডিন, ক্রাইস্টচার্চ, অকল্যান্ড, ওয়েলিংটন)

আবেদন: স্নাতকোত্তর অধ্যয়নের জন্য বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সরাসরি যোগাযোগ করা উচিত।

যোগ্যতা: অধিকাংশই নিউজিল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে স্নাতকোত্তর কোর্সে ভর্তি হবার জন্য বাংলাদেশের গ্র্যাজুয়েশন ব্যবস্থা গ্রহণ করে।একটি বাংলাদেশী স্নাতক ডিগ্রী যেমন-বিএ,বিকম,বিএসসি একটি নিউজিল্যান্ড ব্যাচেলর (সাধারণ) ডিগ্রি সমতুল্য।

Share Button
পড়া হয়েছে 782 বার

Back to Top